ত্রিপুরা ফোকাস

বিনোদন

কুল ডুড অবতারে নওয়াজুদ্দিন

নওয়াজকে এতটা স্টাইলিশ অবতারে এর আগে দেখা যায়নি। ‘গ্যাংস অফ ওয়াসিপুর’, ‘বদলাপুর’ কিংবা ‘রমন রাঘব ২.০’— সব জায়গাতেই তাঁর লুক এক রকম।‘মুন্না মাইকেল’এর পরিচালক সাব্বির খান ঠিক করেছিলেন, ছবিতে নওয়াজের ভোল একেবারে বদলে ফেলতে হবে। দর্শক যাতে চমকে যান। সোশ্যাল মিডিয়ায় নওয়াজের ছবির প্রতিক্রিয়া দেখে এটা স্পষ্ট, যে চমকে দেওয়ার কাজটা দিব্যি করতে পেরেছেন পরিচালক। সাব্বিরের কথায়, ‘‘ভেবেছিলাম লুকটা নিয়ে নওয়াজ অনেক প্রশ্ন করবে। ও কিন্তু কিচ্ছু বলেনি। আমি যা যা বলেছি, সবটা মেনে নিয়েছে। ছবিতে নওয়াজকে নাচতেও দেখা যাবে।’’ নতুন অবতার নিয়ে প্রতিক্রিয়ায় নওয়াজ বলেছেন, ‘‘আমাকে অন্য রকম দেখতে লাগছে ঠিকই। কিন্তু সাব্বির এমন কোনও লুক দেবে না, যেটা আমাকে মানায় না। ছবির ব্যাপারে ও খুব খুঁতখুঁতে। সব কিছু রিয়্যালিস্টিক না হলে সাব্বিরের আবার চলে না!’’

পান মশলার বিজ্ঞাপনে বন্ড

৬৩ বছরের ‘জেমস বন্ডে’র এ হেন অবতারে বাক্‌রুদ্ধ ভক্তকুল! যে নায়ককে এত দিন বড় পর্দায় পানপাত্র আর বন্দুক হাতে দেখে চোখ সয়ে গিয়েছে, তিনি এ বার দেখা দিচ্ছেন পান মশলার বিজ্ঞাপনে! এই নিয়ে ঝড় উঠেছে ফেসবুক-টুইটারে।

শুক্রবার থেকেই ওই পান মশলার বিজ্ঞাপনে দেখা যাচ্ছে পিয়ার্স ব্রসননকে। ‘গোল্ডেন আই’, ‘টুমরো নেভার ডাইস’ এবং ‘দ্য ওয়ার্ল্ড ইজ নট এনাফে’র মতো বন্ড-ছবির নায়ককে কাঁচাপাকা দাড়ি আর কালো চুলে দেখা যাচ্ছে এই মশলার হোর্ডিংয়ে, ব্যানারে। ব্যবহার করা হচ্ছে তাঁর সইও। আর টেলিভিশনের বিজ্ঞাপনে একেবারে বন্ড-সুলভ কায়দায় সামনে আসছেন ব্রসনন। দুষ্টের দমন শিষ্টের পালন করছেন, গা এলিয়ে দিচ্ছেন সুন্দরীদের সঙ্গে। তবে বন্ডের উবাচ নয়, তাঁর মুখে এ বার পান মশলার ট্যাগলাইন — ‘‘ক্লাস নেভার গোজ আউট অব স্টাইল!’’

এই বিজ্ঞাপন জনসমক্ষে আসার সঙ্গে সঙ্গে প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে,  দেশের আদালত যখন মুখের ক্যানসার নিয়ে সচেতনতা বাড়াতে বলিউড-তারকাদের কাছে বার বার পান-মশলার বিজ্ঞাপনে মুখ না দেখানোর আর্জি জানাচ্ছে, তখন বন্ড-খ্যাত ব্রসননকে এ হেন বিজ্ঞাপনের মুখ করা হল কেন? আর ব্রসননই বা কেন এতে রাজি হলেন?

গত জানুয়ারিতেই  ক্যানসারের সচেতনতা প্রচারে পান মশলার বিজ্ঞাপন থেকে সরে দাঁড়ানোর আর্জি জানিয়ে দিল্লির স্বাস্থ্য দফতর চিঠি পাঠিয়েছিল বলিউডের কয়েকজন তারকার কাছে। সেই তালিকায় রয়েছেন,  শাহরুখ খান, সইফ আলি খান, গোবিন্দ, আরবাজ খান সানি লিওন এবং অজয় দেবগণের মতো তারকারা। লাগাতার আর্জির পরেও  বিজ্ঞাপন থেকে তারকারা সরে না দাঁড়ানোয় তাঁদের স্ত্রীদের কাছেও অনুরোধের চিঠি পাঠায় দিল্লি প্রশাসন।

তবে সে সব আর্জি-অনুরোধকে যে বিজ্ঞাপন আর বিপণন সংস্থাগুলো বুড়ো আঙুল দেখাচ্ছে, আরও এক বার স্পষ্ট করে দিল মশলার কৌটো হতে ব্রসননের হোর্ডিং।

বন্ডের এই বিজ্ঞাপনটির শ্যুটিং হয়েছে টেক্সাসে— জানাচ্ছেন বিজ্ঞাপন সংস্থার কর্তারা। তাঁদের মতে, ওই পান মশলার বিজ্ঞাপনে যে বনেদিয়ানার কথা বলা হয়েছে, তাতে দিব্যি মানিয়েছে ব্রসননকে। এক কর্তার কথায়, ‘‘পান মশলার ওই ব্র্যান্ডের ক্যাম্পেনের নাম ‘পহেচান কামিয়াবি কি’ অর্থাৎ সাফল্যের পরিচয়। সে কথা মাথায় রেখেই ব্রসননকে এই ব্র্যান্ডের অ্যাম্বাসাডর করা। ওঁর বন্ড-অবতারের জন্য সারা দুনিয়া ওঁকে সাফল্যের মাপকাঠি হিসেবেই চেনে। এতে আমাদের ব্র্যান্ড সমৃদ্ধ হবে।’’

তবে নায়ককে এমন অবতারে দেখে জোর ধাক্কা খেয়েছে ভক্তকুল! কেউ কেউ বলছেন, ‘শেকেন’ নয়, বন্ড ‘স্টারড’ মার্টিনির ভক্ত হলেও তাঁর এই পান মশলার বিজ্ঞাপনে দেখা দেওয়ায় ভক্তরা একেবারেই ‘শেকেন’।

আদালত থেকে প্রশাসন— যাবতীয় আর্জি-অনুরোধ, সচেতনতা বাড়ানোর হাজার চেষ্টা সত্ত্বেও পান মশলার বিজ্ঞাপনে রুপোলি পর্দার মুখ ফিরে আসছে বার বার। বন্ধ হওয়া তো দূর অস্ত্‌ এ বার বলিউড পেরিয়ে সেই তালিকায় নাম লিখিয়ে ফেলল হলিউডও!

 

জীবন থেকে পিটের নামচিহ্ন তিনি মুছে ফেলতে চান জোলি


হলিউড অভিনেত্রী অ্যাঞ্জেলিনা জোলি হৃদয় থেকে হয়তো সহজে ব্র্যাড পিটকে মুছতে পারবেন না, তবে শরীরে আঁকা উলকিগুলো থেকে পিটের নাম চিরতরে মুছে ফেলছেন তিনি। গত ১৯ সেপ্টেম্বর লস অ্যাঞ্জেলেসের আদালতে স্বামী ব্র্যাড পিটের কাছ থেকে বিবাহবিচ্ছেদের আবেদন করেন জোলি। জীবন থেকে পিটের নামচিহ্ন তিনি মুছে ফেলতে চান। আর তাই পিটকে উৎসর্গ করে এই এক যুগে শরীরে যত উলকি আঁকিয়েছিলেন, তা সব যত দ্রুত সম্ভব মুছে ফেলতে চাইছেন তিনি। এ কাজটি জোলি লেজার প্রযুক্তির মাধ্যমে করাতে যাচ্ছেন। তাঁর ঘনিষ্ঠজনেরা জানান, নিজের সঙ্গে কোনো ধরনের ‘নেতিবাচক’ জিনিস রাখতে চাইছেন না এই অস্কারজয়ী অভিনেত্রী। 

বিচ্ছেদের পরপরই মুঠোফোন থেকে পিটের নম্বর ‘ব্লক’ করে দিয়েছেন জোলি। পিটের কাছ থেকে জোলির ফোনে কল আর খুদে বার্তা আসার পথ এখন বন্ধ। এই কাজটা করা অবশ্য বেশ সহজ ছিল। কিন্তু এবার ব্র্যাডের স্মৃতিচিহ্ন মুছতে অসম্ভব ব্যথা সইতে হবে জোলিকে। তাতেও তিনি রাজি আছেন। 
এই অভিনেত্রীর সারা শরীরে উলকির সংখ্যা প্রায় ১৭টি। এর কয়েকটি সন্তানদের উৎসর্গ করে আঁকিয়েছিলেন। এই অভিজ্ঞতা অবশ্য এই অভিনেত্রীর জন্য নতুন নয়। সাবেক স্বামী বিলি বব থর্টনের সঙ্গে বিচ্ছেদের পরও বিলির নামে করা উলকিও মুছে ফেলেছিলেন জোলি। নিউজ এইটিন।

 

বলিউড তারকাদের মধ্যে এ বছর সবথেকে বেশি আয়কর দিয়েছেন

বলিউড তারকাদের মধ্যে চলতি বছরে সবথেকে বেশি আয়কর দিয়েছেন কে জানেন ? সলমন খান। তিনি এবার ১৬ কোটি টাকা আয়কর দিয়েছেন। গত বছর সবচেয়ে বেশি আয়কর দেওয়া বলিউড তারকা ছিলেন অক্ষয় কুমার। সেই অক্ষয় কুমার এ বছর রয়েছেন দ্বিতীয়স্থানে। গত বছর তিনি ১৮ কোটি টাকা আয়কর দিয়েছিলেন। আর এবার দিয়েছেন ১১ কোটি টাকা।

তৃতীয়স্থানে রয়েছেন রণবীর কাপুর। তিনি আয়কর দিয়েছেন ৭ কোটি ৮ লাখ টাকা। মিস্টার পারফেকশনিস্ট আমির খান আয়কর দিয়েছেন তুলনায় অনেক কম। মাত্র ৩ কোটি ৭ লাখ টাকা। গত বছর তিনি আয়কর দিয়েছিলেন ৪ কোটি ৭ লাখ টাকা। এ বছরে আমির খানের চেয়েও বেশি আয়কর দিয়েছেন কপিল শর্মা। তিনি ৬ কোটি টাকারও বেশি আয়কর দিয়েছেন।

বক্স অফিসেও ছক্কা : ধোনির

মাঠে যে অনায়াস কায়দায় ছক্কা হাঁকান, বক্স অফিসেও সে কায়দাতেই সাফল্যের ছক্কা হাঁকাচ্ছেন মহেন্দ্র সিং ধোনি। ধোনির আত্মজীবনীমূলক সিনেমা ' M.S. Dhoni: The Untold Story'বক্স অফিসে দারুণ ব্যবসা করছে । মুক্তির তিনদিনের মধ্যেই ৬৬ কোটি টাকার ব্যবসা করে ফেলেছে নীরজ পাণ্ডে পরিচালিত এই সিনেমা।

মুক্তির দিন মানে শুক্রবার দেশজুড়ে 'এম.এস.ধোনি:দ্য আনটোল্ড স্টোরি'ব্যবসা করেছিল ২১.৩০ কোটি টাকা, শনিবার ২০.৬০ কোটি টাকা, রবিবার ২৪.১০ কোটি টাকা। যেভাবে চলছে তাতে একশো কোটির ক্লাব অনেকটাই নিশ্চিত এই সিনেমার। উত্তরপ্রদেশে এই সিনেমা সম্পূর্ণ কর মুক্ত ঘোষণা করা হয়েছে।

সুলতানকে ছাপিয়ে পূর্বভারতে বছরের সবচেয়ে বড় হিটও হতে চলেছে সুশান্ত সিং রাজপুতের ধোনিগিরি।

ভিডিও গ্যালারী

  ত্রিপুরা ফোকাস  । © সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ত্রিপুরা ফোকাস ২০১০ - ২০১৭

সম্পাদক : শঙ্খ সেনগুপ্ত । প্রকাশক : রুমা সেনগুপ্ত

ক্যান্টনমেন্ট রোড, পশ্চিম ভাটি অভয়নগর, আগরতলা- ৭৯৯০০১, ত্রিপুরা, ইন্ডিয়া ।
ফোন: ০৩৮১-২৩২-৩৫৬৮ / ৯৪৩৬৯৯৩৫৬৮, ৯৪৩৬৫৮৩৯৭১ । ই-মেইল : This email address is being protected from spambots. You need JavaScript enabled to view it.