ত্রিপুরা ফোকাস

কলকাতার দুই প্রধানের ধাক্কায় ভেঙে তছনছ হয়ে গেছে আই লিগ চ্যাম্পিয়ন মিনার্ভা পঞ্জাব

নতুন মরসুমের জন্য ইস্টবেঙ্গলের বিদেশি স্ট্রাইকার এখনও ঠিক হয়নি। তাই চলতি মরসুমে নজরকাড়া বালিকে তুলে নিল তারা। কলকাতায় ২ প্রধানের ধাক্কায় ভেঙে তছনছ হয়ে গেছে আই লিগ চ্যাম্পিয়ন মিনার্ভা পঞ্জাব। কোনও ট্রফি না পাওয়া মোহনবাগান-ইস্টবেঙ্গল আগামী বছরে দল গঠনের জন্য টার্গেট করেছে পঞ্জাবের এই ক্লাবটিকে। সোমবার মিনার্ভার চার ফুটবলারকে সই করানোর কথা ঘোষণা করেছিল লাল-হলুদ। মঙ্গলবার তারা সই করাল মিনার্ভার স্ট্রাইকার বালি গগনদীপকে। নতুন মরসুমের জন্য ইস্টবেঙ্গলের বিদেশি স্ট্রাইকার এখনও ঠিক হয়নি। তাই চলতি মরসুমে নজরকাড়া বালিকে তুলে নিল তারা। নতুন বছরের জন্য ইস্টবেঙ্গলের দলগঠন প্রায় শেষ। আমনা,কাতসুমি,কাসেম আইয়ারা চূড়ান্ত হওয়ার পর বাকি তিন বিদেশির জায়গা শুধু ভরাট করতে হবে।

 

আগামী মরসুমের দল গোছানোর কাজ শুরু করে দিল ইস্টবেঙ্গল। নতুন মরসুমের জন্য সরকারিভাবে সাত ফুটবলারের সঙ্গে চুক্তি করে ফেলল লাল-হলুদ। যার মধ্যে  পাঁচ জন আই লিগ জয়ী মিনার্ভা পঞ্জাব এফসি-র।আই লিগ চ্যাম্পিয়ন মিনার্ভার সাফল্যের অন্যতম কারিগর কাশিম আইদারাকে তুলে নিল ইস্টবেঙ্গল। সেনেগালের নাগরিক হলেও ৩০ বছর বয়সী মিডফিল্ডার কাশিমের জন্ম জার্মানির হ্যামবার্গে। আক্রমণের পাশাপাশি প্রয়োজনে নিচে নেমে রক্ষণেও সাবলীল কাশিম।মিনার্ভার বিদেশি কাশিমের পাশাপাশি আরও তিন ফুটবলারকে দলে নিল ইস্টবেঙ্গল। সদ্য শেষ হওয়া মরসুমে ইস্টবেঙ্গলের অন্যতম দুর্বল জায়গা ছিল গোলরক্ষক। শেষ দিকে উবেদ ভালো খেললেও মিনার্ভার গোলরক্ষক রক্ষিত দাগারকে নিল তারা। এদিকে অর্নব মন্ডল এটিকেতে সই করেছেন, গুরবিন্দর সিং নর্থ ইস্টের পথে। নতুন মরসুমে রক্ষণ মজবুত করতে মিনার্ভার দুই ডিফেন্ডার সুখদেব সিং এবং দীপক দেবরানিকে তুলে নিল লাল-হলুদ। পাশাপাশি মিনার্ভার বালি গগণদীপকেও তুলে নিয়ে আক্রমণে জোর বাড়িয়ে নিল ইস্টবেঙ্গল।আই লিগ জয়ী মিনার্ভা পঞ্জাবের চার ফুটবলারের পাশাপাশি সন্তোষ ট্রফিতে বাংলার হয়ে ভাল খেলা সেন্ট্রাল মিডফিল্ডার সঞ্চয়ন সমাদ্দার এবং উইঙ্গার জিনকাহলেন হাওকিপকে নতুন মরসুমে তুলে নিল ইস্টবেঙ্গল।

ভিডিও গ্যালারী

  ত্রিপুরা ফোকাস  । © সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ত্রিপুরা ফোকাস ২০১০ - ২০১৭

সম্পাদক : শঙ্খ সেনগুপ্ত । প্রকাশক : রুমা সেনগুপ্ত

ক্যান্টনমেন্ট রোড, পশ্চিম ভাটি অভয়নগর, আগরতলা- ৭৯৯০০১, ত্রিপুরা, ইন্ডিয়া ।
ফোন: ০৩৮১-২৩২-৩৫৬৮ / ৯৪৩৬৯৯৩৫৬৮, ৯৪৩৬৫৮৩৯৭১ । ই-মেইল : This email address is being protected from spambots. You need JavaScript enabled to view it.