ত্রিপুরা ফোকাস

খেলা

বিশ্বকাপ ফাইনালে মাত্র ৯ রানে হেরে গেল ভারতের মেয়েরা

লর্ডসের বুকে নয়া ইতিহাস হয়েও হল না ভারতের। স্বপ্নভঙ্গ। মেয়েদের হাতের জোরে বিশ্বসেরা ভারত একটুর জন্য হওয়া হল না। ইংল্যান্ডের মাটিতে ফাইনালে ইংরেজদেরকে হারিয়েই বিশ্বচ্যাম্পিয়ন প্রায় হয়ে গিয়েছিল ভারত। কিন্তু শেষ পর্যন্ত তীরে এসেই তরী ডুবল। এদিন লর্ডসে টস জিতে প্রথম ব্যাট করে ইংল্যান্ড। ৫০ ওভারের শেষে ৭ উইকেটে ২২৮ রান তোলে ইংরেজরা। ইংল্যান্ডের হয়ে সবথেকে বেশি রান করেন স্কাইভার। তিনি করেন ৫১ রান। ৪৫ রান করেন টেলর। ২৪ এবং ২৩ রান করেন যথাক্রমে দুই ওপেনার উইনফিল্ড এবং বেমন্ট। শেষ দিকে ৩৪ রানের ইনিংস খেলেন ব্রান্ট। দুর্দান্ত বল করেন ঝুলন গোস্বামী। ১০ ওভারে ২৩ রান দিয়ে ৩ টে মেডেন ওভার নিয়ে নেন তিন উইকেট।

Read more...

বিশ্বকাপ ফাইনালে ইংল্যান্ডের কাছে হার মেনে নিতে পারছেন না ভারত অধিনায়ক মিতালি

সচিন তেন্ডুলকর থেকে যুবরাজ সিংহ। রোহিত শর্মা থেকে বীরেন্দ্র সহবাগ। বিধ্বস্ত ভারতীয় মহিলা দলের পাশে দাঁড়াচ্ছেন সকলেই। কিন্তু মাত্র নয় রানে বিশ্বকাপ ফাইনালে ইংল্যান্ডের কাছে হার মেনে নিতে পারছেন না ভারত অধিনায়ক মিতালি রাজ।তিনি বলেছেন, ‘‘এমন একটা সময় ছিল যখন যে কেউ জিততে পারত। কিন্তু সেই সময়ে আতঙ্ক আমাদের লক্ষ্য থেকে ছিটকে দিয়েছে।’’ সেখােনই না থেমে তিনি আরও বলেছেন, ‘‘ম্যাচ জেতা ইংল্যান্ডের কাছেও খুব সহজ ছিল না। কিন্তু ওরা স্নায়ুর চাপটা ধরে রাখতে পেরেছিল।’’ মিতালি জানিয়ে দিয়েছেন, আরও কয়েক বছর জাতীয় দলের হয়ে খেললেও এটাই তাঁর শেষ বিশ্বকাপ। তীব্র যন্ত্রণায় বিদ্ধ মিতালি বলেছেন, ‘‘হতে পারে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার মতো পারফরম্যান্স ছিল না। তবে এই দল নিয়ে আমি গর্বিত।’’ আরও বলেছেন, ‘‘আশা করি এবার মহিলা ক্রিকেট সম্পর্কেও মানুষের ধারণা অনেকটা পাল্টে যাবে।’’

সচিনের কাছে আজীবন কৃতজ্ঞ থাকবেন হরমনপ্রীত

তিনি ভারতকে প্রায় একার কাঁধেই সেমিফাইনালের গাঁট পেরতে সাহায্য করেছেন। তাঁর ১১৫ বলে অনবদ্য ১৭১ রানের ইনিংসে উচ্ছ্বসিত গোটা দেশ। ফাইনালে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে সাফল্য পেতে তাঁর কাছ থেকে আবারও একটা বড় ইনিংস চায় ভারত। তিনি এখন রাতারাতি এ দেশের খ্যাতনামা তারকা। তাঁর শতরানের সঙ্গে তুলনা হচ্ছে ১৯৮৩ বিশ্বকাপে কপিল দেবের অমর ১৭৫ রানের ইনিংসটির। এই প্রতিভাবান ক্রিকেটারটিকে অনেক আগেই চিনেছিলেন প্রাক্তন ভারত অধিনায়ক ডায়না এডুজি। ডায়না ছিলেন ওয়েস্টার্ন রেলের প্রাক্তন ক্রীড়া আধিকারিক। চেয়েছিলেন ওয়েস্টার্ন রেলওয়েজের হয়ে চাকরি করুন হরমনপ্রীত। এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমকে তিনি জানিয়েছেন, আমি ওকে বলেছিলাম , ‘‘তোমাকে আমি সর্বোচ্চ পোস্ট দেব। আমি ওকে চিফ অফিস সুপারিটেন্ডেন্টের পদের জন্য প্রস্তাব দিয়েছিলাম। ’’

Read more...

মহিলাদের ওয়ান ডে বিশ্বকাপের ফাইনালে পৌঁছে গেল ভারত

মহিলাদের ওয়ান ডে বিশ্বকাপের ফাইনালে পৌঁছে গেল ভারত। বৃহস্পতিবার রুদ্ধশ্বাস সেমিফাইনালে অস্ট্রেলিয়াকে ৩৬ রানে হারিয়ে দিল তারা। জয়ের কারিগর হরমনপ্রীত কৌর। মাত্র ১১৫ বলে ১৭১ রানের অপরাজিত ইনিংস খেলে ভারতীয় তারকা বলে দিলেন, টুর্নামেন্টে সেভাবে ব্যাটিং করার সুযোগ না পাওয়ায় বাড়তি উদ্দীপ্ত হয়ে পড়েছিলেন তিনি।অস্ট্রেলীয় বোলিংকে শাসন করার পর হরমনপ্রীত বললেন, ‘‘গোটা টুর্নামেন্টে ব্যাটিং করার সুযোগই তো পাচ্ছিলাম না। তাই এই সুযোগটা কাজে লাগাতে মরিয়া ছিলাম। যা পরিকল্পনা করেছিলাম, সেটাই ক্রিজে গিয়ে প্রয়োগ করেছি। আমার স্ট্র্যাটেজি ছিল বল দেখো আর মারো।’’ প্রথমে ব্যাট করে ভারতের স্কোর যখন ৩৫/২, অধিনায়ক মিতালি রাজের সঙ্গে হাল ধরেন হরমনপ্রীত। বৃষ্টির জন্য ম্যাচের ওভার সংখ্যা কমে দাঁড়িয়েছিল ৪২। ভারতের স্কোর দাঁড়ায় ২৮১/৪। জবাবে ৪০.১ ওভারে অস্ট্রেলিয়া অল আউট হয়ে যায় ২৪৫ রানে। ৫৬ বলে ৯০ রান করে লড়াই চালিয়েছিলেন অ্যালেক্স ব্ল্যাকওয়েল। তবে শেষ হাসি তোলা ছিল ভারতের জন্যই। ঝুলন গোস্বামী ৩৫ রানে ২ উইকেট নিয়েছেন। রবিবার লর্ডসে ফাইনালে মিতালি রাজদের প্রতিপক্ষ আয়োজক দেশ ইংল্যান্ড।

ভারতীয় ক্রিকেটারদের কত টাকা দেওয়া হল, ফাঁস করল বোর্ড

চলতি বছরের জুন মাসে কোন ক্রিকেটারকে কত টাকা দেওয়া হয়েছে, তা নিয়ে তালিকা নিজেদের ওয়াবসাইটে প্রকাশ করেছে বিসিসিআই। ক্রিকেটারদের সঙ্গে আর যাঁদের টাকা মেটেনো হয়েছে পারিশ্রমিক হিসেবে, তাঁদের নামও দেওয়া হয়েছে ওয়েবসাইটে।এই খবর প্রকাশিত হয়েছে বোর্ডের ওয়েবসাইটে।

কোচের পদ থেকে সরে দাঁড়িয়েছেন অনিল কুম্বলে। তাঁর বেতন ছিল ৬.২৫ কোটি। চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির ফাইনালে পাকিস্তানের কাছে হারের পরেই সরে দাঁড়ান ভারতের প্রাক্তন লেগ স্পিনার। ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলিও চাননি কুম্বলেকে। সব মিলিয়ে কুম্বলে সরে যান। তাঁর চেয়ারে বসেছেন রবি শাস্ত্রী। রোহিত শর্মা পেয়েছেন ১.১২ কোটি। অজিঙ্কে রাহানে পেয়েছেন ১.১০ কোটি। 

বাকিরা কত পেলেন, দেখে নিন— 

Read more...

ভিডিও গ্যালারী

  ত্রিপুরা ফোকাস  । © সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ত্রিপুরা ফোকাস ২০১০ - ২০১৭

সম্পাদক : শঙ্খ সেনগুপ্ত । প্রকাশক : রুমা সেনগুপ্ত

ক্যান্টনমেন্ট রোড, পশ্চিম ভাটি অভয়নগর, আগরতলা- ৭৯৯০০১, ত্রিপুরা, ইন্ডিয়া ।
ফোন: ০৩৮১-২৩২-৩৫৬৮ / ৯৪৩৬৯৯৩৫৬৮, ৯৪৩৬৫৮৩৯৭১ । ই-মেইল : This email address is being protected from spambots. You need JavaScript enabled to view it.