ত্রিপুরা ফোকাস

No result ..

সাহিত্যের পাতা

মানুষে- মানুষে সংযুক্তির উৎসব

রুমা মোদক ।। পূজার আনুষ্ঠানিকতা আনন্দের উৎস। সাজ-সজ্জা, মন্ত্র- উপাচার, বিলাস- ব্যসন সেই আনন্দের উৎস নয়।আনন্দের উৎস নয় বাহুল্য খরচের প্রতিমার চাকচিক্য। পূজার আনন্দ মূলত সম্মিলনের আনন্দ। মানুষে মানুষে উৎসব উপলক্ষ করে সংযুক্ত হওয়ার আনন্দ। এই আনন্দে কোন অলৌকিক লাভের হাতছানি নেই।নেই পূণ্যলাভের লোভ।

মানুষে মানুষে সংযুক্ত হবার আনন্দ যুক্ত না হলে পূজা কেবলই পর্যবসিত হয় কিছু আনুষ্ঠানিক আচারে।সংযুক্ততাহীন আচরণ সর্বস্ব আনুষ্ঠানিকতা সার্বিক অর্থে সভ্য মানুষের ইতিহাসে ইতিবাচক কোন ভুমিকা রাখে না।
ভারতীয় উপমহাদেশের স্বাধীনতা অর্জন আর ভারত বিভাগ পারস্পর বিপরীতমুখী দুই ঘটনা এই এলাকাবাসীর। অর্জনের আনন্দ যেখানে বিলীন হয়েছে বিসর্জনে। পরাধীনতার শৃং্খল ছেঁড়ার মাহেন্দ্রক্ষণ যেখানে সিক্ত হয়ে উঠেছে ইতিহাসের করুণতম অশ্রু বিসর্জনে।

Read more...

মহসত্যের বিপরীতে (পর্ব - ১)

শ্যামল ভট্টাচার্য

মহসত্যের বিপরীতে    (পর্ব - ১)

 

এক. বাহান্ন ডাকাত ও একটি মেয়ে

    চারপাশের দিগন্ত বিস্তৃত মেঘহীন নীল আকাশের নিচে দূরবর্তী পর্বতমালাবেষ্টিত শুষ্ক মালভূমি। কোথাও একটিও পাখি উড়ছে না, কোনও জনপ্রাণীর চিহ্নমাত্র নেই। নিঝুম চরাচর। পৃথিবীর ছাদ। পুনর্জন্মে বিশ্বাসী তিব্বতিদের ধারণা মানুষ ও সমস্ত জীবজন্তুর বিদেহী আত্মারা এই মালভূমিতে আশ্রয় নেয়। প্রকৃতির শত্রু আর নগর সভ্যতার স্রষ্টা মানুষদের থেকে ওরা যতটা সম্ভব দূরে থাকে। ওরা এই নীরবতা পচ্ছন্দ করে।

সেই উচ্চভূমির একটি গভীর ও সঙ্কীর্ণ গিরিখাতে সেদিন আত্মাদের দৌরাত্ম্য ছাড়াও গোটা পঞ্চাশেক শক্ত চোয়াল যুবক মোটা ভেড়ার চামড়ার পোশাক আর সাদা ছুঁচলো ফেল্ট টুপি (হ্যাট) পরে ঘোড়ার পিঠে বসে নীরব প্রতীক্ষায়। অতি ব্যবহারে সেই সাদা রঙ এখন প্রায় ছাইরঙা বাজ-পাখির ডানার মতন। ওদের চোখগুলি ওৎ পেতে থাকা নেকড়ে বাঘের মতন দূরবর্তী পাহাড়গুলির দিকে নিবদ্ধ।

Read more...

দেশবিদেশের ঝুমকোলতা

জায়েদ ফরিদ

দেশবিদেশের ঝুমকোলতা

পৃথিবীতে বাঙালির মতো কল্পনাপ্রবণ জাতি আর নেই। আকাশের তারা দিয়ে ফুল বানিয়ে খোঁপায় পরে তারা, তৃতীয়া তিথির চাঁদকে ঝুলিয়ে নেয় কানে। একাদশীর ভাঙা চাঁদও তাদের কাছে মধু ভরা কলসি। রান্না করতে গিয়ে দু’আঙুলের মাথায় একটি লবঙ্গকে ঘুরিয়ে ফিরিয়ে দেখে বিস্মিত হয়, কি অনন্য নাকফুল; ঝুমকোলতার ফুল দেখে ঝুমকা-দুলের কথাই মনে হয় তাদের। ঝুমকোলতা চিরকাল ফুল। বংশবিস্তারের জন্য এদের ফল হয়, বীজ হয় কিন্তু সেই ফল খাওয়া যায় কি না তাতে আমাদের ভ্রূক্ষেপ নেই, আমাদের লক্ষ্য ফুল। তা না হলে বেড়ার গায়ে ঝুমকোলতার কুঁড়ি এসেছে, এই খবর শুনে কেন নাইয়রে ছুটে আসে মেয়ে... এই গল্প রবীন্দ্রনাথের একার নয়, আমাদের সকলের।

Read more...

  ত্রিপুরা ফোকাস  । © সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ত্রিপুরা ফোকাস ২০১০ - ২০১৭

সম্পাদক : শঙ্খ সেনগুপ্ত । প্রকাশক : রুমা সেনগুপ্ত

ক্যান্টনমেন্ট রোড, পশ্চিম ভাটি অভয়নগর, আগরতলা- ৭৯৯০০১, ত্রিপুরা, ইন্ডিয়া ।
ফোন: ০৩৮১-২৩২-৩৫৬৮ / ৯৪৩৬৯৯৩৫৬৮, ৯৪৩৬৫৮৩৯৭১ । ই-মেইল : This email address is being protected from spambots. You need JavaScript enabled to view it.