ত্রিপুরা ফোকাস

সাহিত্যের পাতা

কন্টক সুন্দরম

জায়েদ ফরিদ

কন্টক সুন্দরম

গোলাপের ফুল-পাতা-কলি শুধু নয়, কন্টকও সুন্দর। শুধু সুন্দর নয়, ভয়ঙ্করও। প্রেসিডেন্ট লিঙ্কন বলতেন, গোলাপে কাঁটা আছে বলে আমরা অভিযোগ করতে পারি কিন্তু উৎফুল্লও হতে পারি কাঁটার মাথায় গোলাপ দেখে। গোলাপ-কাঁটার মাথা সর্বদাই থাকে নিচের দিকে বাঁকানো, কিরীচের মতো। কিরীচ না রেখে উপায় কি, গাছ বেয়ে ওঠা ক্ষুদ্র প্রাণীর তো অভাব নেই। গাছ থেকে পাতা খাওয়ার সময় গবাদি প্রাণীর লম্বা জিভ নিচ থেকে উপরের দিকে ওঠে, সঙ্গে মাথাটাও। ভয়ঙ্কর কিরীচে জিব গেঁথে যাওয়ার ভয়ে গোলাপের পাতা খাওয়ার শখ এসব প্রাণীর হয় না। মনুষ্য-প্রাণীরা অবশ্য কৌশলে গোলাপ খায়, সারা জগৎ জুড়ে কয়েক হাজার বছর ধরেই খাচ্ছে; এদের পাপড়ি ছাড়া গুলকন্দের মতো অসাধারণ উপাদেয় খাবার তৈরি হয় না। কিন্তু গোলাপ সংগ্রহের জন্য মাঝে মাঝে আমাদের জরিমানা দিতে হয়, এমন কি জীবনের বিনিময়ে।

Read more...

মহাসত্যের বিপরীতে (পর্ব-৫)

শ্যামল ভট্টাচার্য

মহাসত্যের বিপরীতে

পাঁচ. নতুন অভিযান

লুটের মাল কতটা বিক্রি করা হবে আর কোথায় বিক্রি করা হবে এই নিয়ে আলোচনা আবার শুরু হলেও দুপুরে খাওয়ার আগে পর্যন্ত ওরা কোনও সমাধানে পৌঁছতে পারে না। গরব কিম্বা তার কোনও অনুগামী কোনও সর্বগ্রাহ্য সন্তোষজনক পরিকল্পনা ছকতে পারে না। কিন্তু দুপুরে খাওয়ার সময় গরবের মনে ধীরে ধীরে একটি নতুন পরিকল্পনা অঙ্কুরিত হতে শুরু করে।

Read more...

লড়াই শেষ, পুণ্যদা আর নেই

মিলন চট্টোপাধ্যায়

লড়াই শেষ, পুণ্যদা আর নেই

১৫ই অক্টোবর ২০১৭, রাত ৮ টা ২৫ মিনিটে খবর এল হাসপাতাল থেকে। আরেক প্রিয় মানুষ শেখর কর যখন জানালেন- 'লড়াই শেষ' ঠিক তক্ষুনি হূহূ করে উঠল হাওয়া। ফাঁকা হয়ে গেল চারপাশ। পুণ্যশ্লোক দাশগুপ্ত আর নেই। কয়েকদিন ধরেই ভুগছিলেন রঘু'দা। শেষবার দেখা এন আর এস হাসপাতালে কয়েকমাস আগে। বাইরে তখন প্রচণ্ড বৃষ্টি। আমি আর শমীক কথা বললাম। বকাবকিও করলাম। রঘুদা বললেন - "এবার তোমার জন্য সিরিজ লিখব। তুমি ধূপগুড়ি এস আবার। মা দেখতে চাইছেন। আমি তোমাকে নিয়ে যাব ভুটান পাহাড়ে।'' বললাম - 'এই শীতেই যাব দাদা। অনেকগুলো নতুন রান্না শিখেছি। রান্না করব আর খুব ঘুরবো। কবিতা হবে, আড্ডা হবে।' রঘুদা শিশুর মত খুশি হয়ে উঠলেন।

Read more...

  ত্রিপুরা ফোকাস  । © সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ত্রিপুরা ফোকাস ২০১০ - ২০১৭

সম্পাদক : শঙ্খ সেনগুপ্ত । প্রকাশক : রুমা সেনগুপ্ত

ক্যান্টনমেন্ট রোড, পশ্চিম ভাটি অভয়নগর, আগরতলা- ৭৯৯০০১, ত্রিপুরা, ইন্ডিয়া ।
ফোন: ০৩৮১-২৩২-৩৫৬৮ / ৯৪৩৬৯৯৩৫৬৮, ৯৪৩৬৫৮৩৯৭১ । ই-মেইল : This email address is being protected from spambots. You need JavaScript enabled to view it.