ত্রিপুরা ফোকাস

চিন সফরে মোদী

এক দশক পর দুই কোরিয়ার শীর্ষবৈঠক ঘিরে যখন কৌতুহলি সব চোখ চেয়ে রয়েছে প্রশান্ত মহাসাগরের তীরে তখনই বেজিং পৌঁছচ্ছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী। শুক্রবার চিনা প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের সঙ্গে বৈঠকে বসবেন তিনি। ডোকলাম-সহ বকেয়া সমস্ত বিষয় নিয়ে দুপক্ষের আলোচনা হতে পারে বলে মনে করছে কূটনৈতিক মহল। মোদীর এই সফরে দুই দেশের সম্পর্কে নতুন জোয়ার আসবে বলে আশাবাদী কূটনীতিকরা। বৃহস্পতিবারই দু'দিনের চিন সফরে বেজিংয়ের উদ্দেশ্যে রওনা দিচ্ছেন মোদী। ভারতীয় বিদেশমন্ত্রক সূত্রের খবর, ডোকলাম ইস্যু-সহ ভারত-চিন সীমান্ত সমস্যা নিয়ে আলোচনা হতে পারে দুই দেশের রাষ্ট্রপ্রধানের মধ্যে। গত বছর দুই মাস ধরে চলা ডোকলাম বিবাদের অবসান হলেও চাপানোতরের রেশ এখনো কাটেনি। ডোকলামে চিনা সেনার আধিপত্য বজায় থাকায় স্বভাবতই কপালে ভাঁজ পড়েছে সাউথ ব্লকের।

এই বৈঠকে মোদীর হাত ধরেই ডোকলাম ইস্যুর রফাসূত্র বেরিয়ে আসার সম্ভাবনা রয়েছে বলে মনে করছে কূটনৈতিক শিবির।আন্তর্জাতিক বিশেষজ্ঞদের মতে, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে বাণিজ্যিক সম্পর্কে বড়সড় ধাক্কা খাওয়ায় ভারতকেই এখন পাখির চোখ করে এগোতে চাইছে বেজিং। বিশ্বের মোট জিডিপির ১৭.৬ শতাংশ অবদান রয়েছে ভারত-চিনের। ওদিকে জিনপিং-মোদীর বৈঠকে তেমন গুরুত্বপূর্ণ আলোচনা হবে না বলে দাবি করেছেন ভারতের প্রাক্তন বিদেশসচিব এস জয়শঙ্কর। তবে দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্যিক সম্পর্ক মজবুত করতে উভয়েই আগ্রহী বলে মনে করছেন অনেকে।

ভিডিও গ্যালারী

  ত্রিপুরা ফোকাস  । © সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ত্রিপুরা ফোকাস ২০১০ - ২০১৭

সম্পাদক : শঙ্খ সেনগুপ্ত । প্রকাশক : রুমা সেনগুপ্ত

ক্যান্টনমেন্ট রোড, পশ্চিম ভাটি অভয়নগর, আগরতলা- ৭৯৯০০১, ত্রিপুরা, ইন্ডিয়া ।
ফোন: ০৩৮১-২৩২-৩৫৬৮ / ৯৪৩৬৯৯৩৫৬৮, ৯৪৩৬৫৮৩৯৭১ । ই-মেইল : This email address is being protected from spambots. You need JavaScript enabled to view it.