ত্রিপুরা ফোকাস

ধর্ষণকাণ্ডে দোষী সাব্যস্ত স্বঘোষিত গুরু আসারাম বাপু

ভক্তদের আকুল প্রার্থণা বিফলে। নাবালিকা ধর্ষণ মামলায় স্বঘোষিত গুরু আসারাম বাপুকে দোষী সাব্যস্ত করল ‌যোধপুরের বিশেষ আদালত। একইসঙ্গে আসারামের দুই সঙ্গীকেও দোষী সাব্যস্ত করা হয়েছে। মুক্তি দেওয়া হয়েছে আরও ২ জনকে। রায় ঘোষণার পর নি‌র্যাতিতার বাবা সংবাদ মাধ্যমে বলেন, ‘আশাকরি আসারামের কড়া সাজা হবে। এতদিনে ন্যায় বিচার পেলাম। দুর্দশার দিনে ‌যাঁরা আমাদের পাশে ছিলেন তাঁদের ধন্যবাদ। ‌যেসব সাক্ষীদের খুন করে লোপাট করে দেওয়া হয়েছে তাদের পরিবারও ন্যায় বিচার পাবে বলে মনে করছি।’ অন্যদিকে, আসারামের মুখপাত্র নীলম দুবে বলেন, ‘বিচার ব্যবস্থার উপরে আমাদের আস্থা রয়েছে। আমরা উচ্চ আদালতে ‌যাব।’ উল্লেখ্য, ২০১৩ সালে ‌যোধপুরে নিজের আশ্রমে এক কিশোরীকে ধর্ষণ করার অভি‌যোগ উঠেছিল আসারামের বিরুদ্ধে। আজ সেই মামলার রায় ঘোষণা উপলক্ষ্যে জোরদার নিরাপত্তা ব্যবস্থা করা হয়। ‌বাপুর বিপুল সমর্থকের কথা মাথায় রেখে রাজস্থান, গুজরাট ও হরিয়ানায় কড়া নিরাপত্তা ব্যবস্থা করা হয়। আসারাম সমর্থকরা গোলামাল পাকাতে পারে এমন আশঙ্কা করেই ‌যোধপুর কেন্দ্রীয় সংশোধনাগারেই সাজা ঘোষণা করা হয়। সাধারণ মানুষের জন্য আজ কেন্দ্রীয় সংশোধনাগার নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হয়।

জারি করা হয় ১৪৪ ধারা। যোধপুরের ডিসিপি আমনদীপ সিং বুধবার সংবাদ মাধ্যমে জানান, ‌’যোধপুরে ২১ এপ্রিল থেকে ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে। এই ধারা জারি থাকবে ৩০ এপ্রিল প‌র্যন্ত। এছাড়াও শহরের প্রতিটি হোটেল, বাসস্টপ, রেল স্টেশনে রুটিন তল্লাশি চালানো হচ্ছে।’ গত বছর ডেরা সচ্চা সৌদা প্রধান গুরমিত রাম রহিম সিংয়ের সাজা ঘোষণার পর তার সমর্থকরা পঞ্জাব, হরিয়ানা ও চণ্ডীগড় তোলপাড় করে। মৃত্যু হয় বেশ কয়েক জনের। বিপুল সম্পত্তিহানি ঘটে। সেকথা মাথায় রেখেই এবার এলাহি নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা হয়েছে।

ভিডিও গ্যালারী

  ত্রিপুরা ফোকাস  । © সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ত্রিপুরা ফোকাস ২০১০ - ২০১৭

সম্পাদক : শঙ্খ সেনগুপ্ত । প্রকাশক : রুমা সেনগুপ্ত

ক্যান্টনমেন্ট রোড, পশ্চিম ভাটি অভয়নগর, আগরতলা- ৭৯৯০০১, ত্রিপুরা, ইন্ডিয়া ।
ফোন: ০৩৮১-২৩২-৩৫৬৮ / ৯৪৩৬৯৯৩৫৬৮, ৯৪৩৬৫৮৩৯৭১ । ই-মেইল : This email address is being protected from spambots. You need JavaScript enabled to view it.