ত্রিপুরা ফোকাস

No result ..

জাতীয়

"বিজেপিতে ভয় নেই, তবে আমাদের আরও ভাল কাজ করতে হবে।" : মানিক সরকার

ভয়ডরহীন মানিক। ভারতের পূর্ব প্রান্তকে যতই টার্গেট করুক বিজেপি, তাতে একটুও বিচলিত নন সিপিএমের মানিক। সম্প্রতি একটি ইংরাজি ম্যাগাজিনে দেওয়া সাক্ষাৎকারে ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী মানিক সরকার সাফ জানালেন, "বিজেপিতে ভয় নেই, তবে আমাদের আরও ভাল কাজ করতে হবে।"রক্তক্ষরণ হতে হতে এখন কেবল কেরল আর আর ত্রিপুরায় এসে ঠেকেছে লাল পার্টি। গোটা ভারতে পিনারাই বিজয়ন আর মানিক সরকার ছাড়া তেমন কোনও গ্রহণযোগ্য মুখই মার্ক্সবাদী কমিউনিস্টদের নেই। লাল বাংলা এখন ইতিহাস। বছর ছয়েক আগে 'সবুজ বিপ্লব' ঘটে যাওয়ার পর রাজ্যসভা থেকেও এবার বিদায় নিলেন বাংলা থেকে নির্বাচিত সীতারাম। অপসারণ ঘটেছে বাকপটু ঋতব্রত ব্যানার্জিও। দলের কেন্দ্রীয় কমিটিও বকলমে চলে কারাত লবির অঙ্গুলিহেলনেই। কেরলই এখন দলের হত্তাকর্তা। পশ্চিমবঙ্গে বামফ্রন্ট সরকার সরতেই সর্বভারতীয় ক্ষেত্রে দুর্বল হয়েছে পূবের সিপিএম'রা। তবে বিজেপি বিরোধিতা এবং মোদীকে বিঁধতে ত্রিপুরা, পশ্চিমবঙ্গ সহ গোটা ভারতভূখণ্ডেই মানিক সরকারে জুড়ি মেলা ভার। বলা ভাল এখন পশ্চিমবাংলার 'বাম মুখ'ও ত্রিপুরার বাঙালি মুখ্যমন্ত্রী।ইংরাজি ম্যাগাজিনের সাক্ষাৎকারে মানিক কেন্দ্রের সরকারের বিরুদ্ধে তোপ দেগে বলেন, "কেন্দ্র আমাদের কখনই সহযোগিতা করেনি"। সাম্প্রতিক সময়ের প্রসারভারতী বিতর্ক নিয়েও নাম না করে ভারতের প্রধানমন্ত্রীকে বিঁধেছেন সিপিএমের পলিটব্যুরো সদস্য। একই সঙ্গে কংগ্রেসের সঙ্গে সমঝোতা নিয়েও সরব হয়েছেন মানিক সরকার। কংগ্রেসের সঙ্গে বামেদের জোট প্রসঙ্গে তিনি বলেন, "প্রশ্নই নেই। এখানে বামফ্রন্ট একসঙ্গে কাজ করছে।" পশ্চিমবঙ্গের বিধানসভা ভোটে বামেদের সঙ্গে কংগ্রেসের জোট প্রসঙ্গে ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী বলেন, "অন্য রাজ্যের পরিস্থিতি অন্যরকম। ত্রিপুরায় বামফ্রন্ট আরও ভাল কাজের চেষ্টা করেছে।" ওই সাক্ষাৎকারে মানিক সরকার ত্রিপুরার পরিকাঠামোগত উন্নয়নের কথাও জানান।  

রেপো রেট ৬ শতাংশেই অপরিবর্তিত রাখল আরবিআই, কমল আর্থিক বৃদ্ধির লক্ষ্যমাত্রা

অগাস্ট মাসে রেপো রেট ২৫ বেসিস পয়েন্ট কমানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছিল ভারতের রিজার্ভ ব্যাঙ্ক। এবারও সবার চোখ ছিল, শীর্ষ ব্যাঙ্ক রেপো রেট ফের কমায় কিনা, তার উপরই। কিন্তু, দু'দিনের মানিটারি পলিসি কমিটির বৈঠকের শেষে রেপো রেট অপরিবর্তিত রাখারই সিদ্ধান্ত নিল রিজার্ভ ব্যাঙ্ক। রেপো রেটের হার ৬ শতাংশে অপরিবর্তিত রাখা হল। একইসঙ্গে, ৫.৭৫ শতাংশে অপরিবর্তিত রইল রিভার্স রেপো রেটের হারও। মুদ্রাস্ফীতির হার অগাস্টে, গত পাঁচ মাসের মধ্যে সর্বোচ্চ ৩.৩৬ শতাংশে পৌঁছে যায়। যেকারণেই শীর্ষ ব্যাঙ্ক রেপো রেট অপরিবর্তিত রাখল বলে মনে করা হচ্ছে। একইসঙ্গে মুদ্রাস্ফীতির হার আরও বাড়বে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করা হয়েছে। সম্ভাব্য মুদ্রাস্ফীতির হার ধরা হয়েছে ৪ শতাংশ। কমতে পারে আর্থির বৃদ্ধির হারও। ৭.৩ শতাংশ থেকে কমিয়ে আর্থিক বৃদ্ধির লক্ষ্যমাত্রা করা হয়েছে ৬.৭ শতাংশ।

Read more...

ভিডিও গ্যালারী

  ত্রিপুরা ফোকাস  । © সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ত্রিপুরা ফোকাস ২০১০ - ২০১৭

সম্পাদক : শঙ্খ সেনগুপ্ত । প্রকাশক : রুমা সেনগুপ্ত

ক্যান্টনমেন্ট রোড, পশ্চিম ভাটি অভয়নগর, আগরতলা- ৭৯৯০০১, ত্রিপুরা, ইন্ডিয়া ।
ফোন: ০৩৮১-২৩২-৩৫৬৮ / ৯৪৩৬৯৯৩৫৬৮, ৯৪৩৬৫৮৩৯৭১ । ই-মেইল : This email address is being protected from spambots. You need JavaScript enabled to view it.