ত্রিপুরা ফোকাস

এনসিটিই এবং শিক্ষার অধিকার আইনে শিথিল না করলে সংকটে পড়বে ত্রিপুরা : শিক্ষামন্ত্রী

রাজ্যের স্কুলগুলিতে ১২,২২২ ওপর শিক্ষকের পদ খালি রয়েছে। যদি আইন শিথিল না করা হয়, তাহলে হাজার হাজার ছাত্র সমস্যায় পড়বে। ত্রিপুরার শিক্ষামন্ত্রী জানিয়েছেন, পাশ করে গিয়েছেন, কিংবা পড়াশোনা করছেন রাজ্যের এমন সব বিএড প্রার্থীকে ধরলে বড় জোড় সংখ্যাটা ১৫০০-র মতো হবে। রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী ২০ এপ্রিল বিষয়টি নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর কাছে জানিয়েছিলেন। একবারের জন্য ছাড় দেওয়ার অনুরোধও করেছিলেন। এ নিয়ে রাজ্যের বিএড ট্রেনিদের শেষ দলটি স্টেট সিভিল সেক্রেটারিয়েটের সামনে বিক্ষোভ প্রদর্শন করে। রাজ্য সরকার কেন শিক্ষক নিয়োগে নিয়মের শিথিল চাইছে, সেই প্রশ্ন তোলে বিক্ষোভকারীরা। ত্রিপুরার শিক্ষামন্ত্রী জানিয়েছেন, মানব সম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রক যদি নিয়মে শিথিল করেও, তবুও বিএড ট্রেনিদের স্বার্থ বিঘ্নিত হবে না। এই মুহূর্তে ত্রিপুরায় শিক্ষকের সংখ্যা প্রায় ৩০ হাজার। যার মধ্যে ৬,৮৬৪ জন আগামি বছরে অবসর নেবেন। এনসিটিই এবং শিক্ষার অধিকার আইনে শিথিল না করলে সংকটে পড়বে ত্রিপুরা। এমনটাই বললেন ত্রিপুরার শিক্ষামন্ত্রী রতনলাল নাথ।

ভিডিও গ্যালারী

  ত্রিপুরা ফোকাস  । © সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ত্রিপুরা ফোকাস ২০১০ - ২০১৭

সম্পাদক : শঙ্খ সেনগুপ্ত । প্রকাশক : রুমা সেনগুপ্ত

ক্যান্টনমেন্ট রোড, পশ্চিম ভাটি অভয়নগর, আগরতলা- ৭৯৯০০১, ত্রিপুরা, ইন্ডিয়া ।
ফোন: ০৩৮১-২৩২-৩৫৬৮ / ৯৪৩৬৯৯৩৫৬৮, ৯৪৩৬৫৮৩৯৭১ । ই-মেইল : This email address is being protected from spambots. You need JavaScript enabled to view it.